তর্কের যে নিয়ম প্রশ্নহীনভাবেই গ্রাহ্য তার বাইরের তর্ক

তওবা!–পত্রিকা-মাওলানাদের তাবলিগি হুজ্জত!

প্রথম শপথ >>
“যেহেতু প্রথম আলো সম্পাদক তার গর্হিত অপরাধের জন্য অনুতপ্ত হয়েছেন, ক্ষমা চেয়েছেন এবং তওবা করেছেন কাজেই তার ক্ষমার বিষয়টি আল্লাহ তায়ালা জানেন।”

– খতিব উবায়দুল হক, সেপ্টেম্বর, ২০০৭

mr_khatib

“এক সময়কার কঠিন বামপন্থী মতি ভাই তার মতই আরো একপাল তথাকথিত প্রগতির ঝান্ডাধারী সম্পাদক আর তথ্য উপদেষ্টা সমবিহারে টুপি মাথায় বায়তুল মোকাররমে হুজুরদের সাথে ইফতারী করে আর নামাজ পরে একেবারে খাস দিলে আল্লাহর কাছে তওবা করে করজোরে মাফ চেয়ে এসেছেন। সেই সাথে বলে এসেছেন যে প্রথম আলো শুরু থেকেই পবিত্র ইসলাম ধর্মের সাথে ছিল এবং আজীবন থাকবেই।”

– ধর্মানুভূতির ধর্মকথা / ফরিদ আহমেদ; মুক্তমনা

cb1

এনজিওধর্মী পত্রিকা প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের শপথের বা তওবার অ্যাডিকশন শুরু হইছে বায়তুল মোকাররম মসজিদের সে সময়কার খতিবের কাছে গিয়া। এখন সকল শিয়ালরে সমুদ্রপাড়ে জড় করছেন তিনি। এই শপথ যেহেতু ধর্ম থিকা শুরু হইছিল ধর্মেই এর খতম হবে–এমন আশঙ্কা রইল। যখন পত্রিকা-মাওলানারা ঠিক কইরা দেয় কোনটা শুভ আর কোনটা অশুভ, কোন জিনিসরে বাদ দিতে হবে আর কোনটা গ্রহণ করতে হবে তখন রাজ্যে ফ্যাসিবাদ কার্যকর হয়।

cb2

পত্রপত্রিকার এনজিওগিরির ব্যাপারে আইনপ্রণেতারা কিছু করবেন কি? যেসব ব্যাপারে নাগরিকদের বাছাই বা পছন্দ করার স্বাধীনতা আছে সেসব ব্যাপারকে সামাজিক ভাবে হেয় করার অধিকার কোনো সংগঠনের নাই। দোয়া করি এই শপথের হুজুগ যেন ব্যানারেই সীমিত থাকে। রাস্তাঘাটে, দোকানে বা বাসাবাড়িতে যেন এইসব শপথীদের নসিহতের মুখে না পড়ি! এ কোন তাবলিগিদের হুজ্জত শুরু হইল!

 

২০ জুন ২০০৯

 

Flag Counter

Leave a Reply