তর্কের যে নিয়ম প্রশ্নহীনভাবেই গ্রাহ্য তার বাইরের তর্ক

পান্তাকে গরীবের খাদ্য যারা বলেন তারা বর্ণবাদী

অরা কয়, পহেলা বৈশাখে নাকি পান্তা-ইলিশ খাওয়ার প্রচলন ছিল না! সব জ্বলন্ত ইতিহাসবিদ আইছে।

পহেলা বৈশাখে লোকে কী খাবে না খাবে এইটা হিন্দু-মুসলমান-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ও নানা গোষ্ঠী ভেদে নানা প্রকার।

বাংলার মানুষ বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ, আষাঢ়, শ্রাবণ, ভাদ্র, আশ্বিন, কার্তিক, অগ্রহায়ণ, পৌষ, মাঘ, ফাল্গুন, চৈত্র সব মাসেই পান্তা খাইছে, ইলিশ খাইছে, পান্তা-ইলিশও খাইছে।
দুই দিন আগের ফ্রিজ-বাহাদুররা এখন পান্তারে গরীবের খাদ্য ঘোষণা করতে চায়!

অথচ এগো দুই পুরুষ আগের চৌদ্দ গুষ্টি পান্তা খাইয়া বড় হইয়া এদের জন্মদান করছে। আজকে তারা সেই পান্তারে অস্বীকার করতে চায়!

পান্তারে গরীবের খাদ্য বলাটা প্রথমত গরীবের অপমান, দ্বিতীয়ত মনুষ্যত্বের। এই বর্ণবাদীদের প্রতিহত করুন।

১৩/৪/২০১৬

Facebook Comments

Leave a Reply