উন্নয়ন ভাবাপন্নতার লগে তর্ক বা আলাপ চলে না। উন্নয়ন মার্গীদের যে কোনো আলাপ শেষ পর্যন্ত মানবিকতার দোহাই।

সেইটা কোন মানবিকতা তা আবার পশ্চিমের এনজিও ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি ঠিকঠাক কইরা রাখছে।

এই তথাকথিত এনজিও বোধ দিয়াই চালিত হয় এই দিকের অ্যাকটিভিস্টরা।

এরা ঠিক করে কোনটা ভাল, এবং কোন ভালোটা আপনার জন্যে ভাল।

একটা সার্বক্ষণিক সমাজ উন্নয়ন পাঠশালা দিয়া তারা আপনার আচার আচরণ ঠিক করতে চায়।

বিনা প্রশ্নে, কোনো যুক্তি ছাড়াই তাদের রিজেক্ট করুন।

এই লড়াইয়ের ময়দানে, মনে রাখবেন, যুক্তি মানা মানেই যে বেশি যুক্তি জানে তার পাতা ফাঁদে আত্মসমর্পণ করা।

৩/৭/২০১৮