বুদ্ধিজীবী মানেই সুবিধাভোগী, সরকারের সুবিধাভোগী

এই দেশের সব বুদ্ধিজীবীই সরকারের সুবিধাভোগী বুদ্ধিজীবী।

যে কথা বললে বিরোধী দলের যে কাউকে কঠোর ভাবে প্রতিহত করা হয়, সেই একই কথায় বুদ্ধিজীবীদের ছাড়ের সুবিধা দেওয়া হয়।

অর্থাৎ বুদ্ধিজীবীরা যাতে বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করতে পারে সরকার তাদের জন্য সে ব্যবস্থা বা সুবিধা রেডি রাখতেছে।

কারণ দেশে বিরোধী দলের দরকার আছে। সেইটা বুদ্ধিজীবীদের দ্বারা তৈরি নকল বিরোধী দল হইলেও।

অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে কথা বলার দায়িত্ব কেবল বিরোধী দল বা বুদ্ধিজীবীদের নয়, সব মানুষের।

সব মানুষ বা বিরোধী দল কেন ওইভাবে বলতেছে না?

কারণ সরকার চায় শুধু বুদ্ধিজীবীরাই তা বলুক।

মিস্টার বুদ্ধিজীবী, আপনি রেডি তো?


Leave a Reply